২৫শে সেপ্টেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ১০ই আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

সাগরে লঘুচাপ, গরম কমার আভাস দিল আবহাওয়া অফিস

আপডেট : আগস্ট ১৮, ২০২২ ১:৫৫ অপরাহ্ণ

36

ভয়েস বাংলা ডেস্ক

বঙ্গোপসাগরে আরও একটি লঘুচাপ সৃষ্টি হয়েছে। গত ১০ দিনে এ নিয়ে ৩টি লঘুচাপ সৃষ্টি হলো। এর মধ্যে দুটিই নিম্নচাপে পরিণত হয়ে প্রচুর বৃষ্টি ঝরিয়েছে। এবারের লঘুচাপও আরও ঘনীভূত হতে পারে বলে আবহাওয়া অধিদপ্তর সূত্র জানাচ্ছে। এতে কাল থেকে দেশের দক্ষিণের উপকূলীয় অঞ্চলসহ বিভিন্ন জায়গায় বৃষ্টি হতে পারে। এতে কমতে পারে তীব্র গরম। লঘুচাপের কারণে দেশের চারটি সমুদ্রবন্দরকে তিন নম্বর স্থানীয় সতর্কসংকেত দেখাতে বলা হয়েছে।

আজ বৃহস্পতিবার বেলা ১১টায় দেওয়া আবহাওয়া অধিদপ্তরের পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, উত্তর-পূর্ব বঙ্গোপসাগর ও এর কাছাকাছি এলাকায় একটি লঘুচাপ সৃষ্টি হয়েছে। এটি আরও ঘনীভূত হতে পারে। ভারতের রাজস্থান ও এর কাছাকাছি এলাকায় এখন আছে সুস্পষ্ট লঘুচাপটি। মৌসুমি বায়ুর অক্ষ সুস্পষ্ট লঘুচাপের কেন্দ্রস্থল এবং এটি ভারতের উত্তর প্রদেশ, বিহার, পশ্চিমবঙ্গ ও বাংলাদেশের দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চল হয়ে আসাম পর্যন্ত বিস্তৃত রয়েছে। মৌসুমি বায়ু বাংলাদেশের ওপর মোটামুটি সক্রিয় এবং উত্তর বঙ্গোপসাগরের অন্যত্র প্রবল অবস্থায় রয়েছে।

আগামী ২৪ ঘণ্টার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, খুলনা ও বরিশাল বিভাগের অনেক জায়গায়, রাজশাহী, ঢাকা ও চট্টগ্রাম বিভাগের কিছু জায়গায় এবং রংপুর, ময়মনসিংহ ও সিলেট বিভাগের দু-এক জায়গায় অস্থায়ীভাবে দমকা হাওয়াসহ হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টি হতে পারে। সেই সঙ্গে দেশের দক্ষিণাঞ্চলের কোথাও কোথাও মাঝারি ধরনের ভারী থেকে ভারী বর্ষণ হতে পারে।

গোপালগঞ্জ, মানিকগঞ্জ জেলাসহ রাজশাহী, রংপুর, ময়মনসিংহ ও খুলনা বিভাগের ওপর দিয়ে মৃদু প্রবাহ বয়ে যাচ্ছে এবং তা কিছু এলাকায় কমে যেতে পারে।

আবহাওয়া অধিদপ্তরের আবহাওয়াবিদ মুহাম্মদ আবুল কালাম মল্লিক আজ বলেন, লঘুচাপের প্রভাবে উত্তর বঙ্গোপসাগর ও এর কাছাকাছি এলাকায় গভীর সঞ্চারণশীল মেঘমালার সৃষ্টি হচ্ছে। ফলে উত্তর বঙ্গোপসাগর ও বাংলাদেশের উপকূলীয় এলাকায় ঝোড়ো হাওয়া বয়ে যেতে পারে।

লঘুচাপের কারণে চট্টগ্রাম, কক্সবাজার, মোংলা ও পায়রা সমুদ্রবন্দরকে তিন নম্বর স্থানীয় সতর্কসংকেত দেখাতে বলা হয়েছে। উত্তর বঙ্গোপসাগর ও গভীর সাগরে অবস্থানরত মাছ ধরার নৌকা, ট্রলারগুলোকে পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত উপকূলের কাছাকাছি এসে সাবধানে চলাচল করতে বলা হয়েছে।

আবহাওয়াবিদ মুহাম্মদ আবুল কালাম মল্লিক বলেন, শুধু দক্ষিণের উপকূলীয় অঞ্চল নয়, সিলেটসহ দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে শনিবার পর্যন্ত বৃষ্টি হতে পারে। সপ্তাহজুড়ে বৃষ্টির কিছু রেশ থাকবে। এতে তীব্র গরম কমবে। রাজধানীতেও কাল বৃষ্টি হতে পারে।

সূত্র: প্রথম আলো




স্মৃতি ও স্মরণ

ছবি