৮ই ডিসেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ২৩শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

তাইওয়ানের ৭ কর্মকর্তার ওপর চীনের নিষেধাজ্ঞা

আপডেট : আগস্ট ১৬, ২০২২ ১:০৯ অপরাহ্ণ

54

ভয়েস বাংলা ডেস্ক

তাইওয়ানের স্বাধীনতাকে সমর্থন করায় স্বায়ত্তশাসিত অঞ্চলটির সাত কর্মকর্তার ওপর নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে চীন। গতকাল মঙ্গলবার চীনের রাষ্ট্রীয় গণমাধ্যম এ তথ্য দিয়েছে। খবর রয়টার্সের।

চলতি মাসের শুরুর দিকে মার্কিন প্রতিনিধি পরিষদের স্পিকার ন্যান্সি পেলোসি তাইওয়ান সফর করেন। এ সফরকে কেন্দ্র করে চলমান উত্তেজনার মধ্যে তাইওয়ানের সাত কর্মকর্তার ওপর নিষেধাজ্ঞা দিল চীন।

নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে চীনের তাইওয়ান–বিষয়ক কার্যালয়। যে সাত কর্মকর্তার ওপর নিষেধাজ্ঞা দেওয়া হয়েছে, তাঁদের মধ্যে আছেন সিয়াও বি খিম ও ওয়েলিংটন কু।

সিয়াও বি খিম ওয়াশিংটনে নিযুক্ত তাইওয়ানের দূত। আর ওয়েলিংটন কু তাইওয়ানের জাতীয় নিরাপত্তা পরিষদের মহাসচিব।

তাইওয়ানের ক্ষমতাসীন রাজনৈতিক দল ডেমোক্রেটিক প্রগ্রেসিভ পার্টির রাজনীতিবিদদের ওপরও নিষেধাজ্ঞা দেওয়া হয়েছে।

তাইওয়ান–বিষয়ক কার্যালয়ের এক মুখপাত্র বলেছেন, যাঁদের ওপর নিষেধাজ্ঞা দেওয়া হয়েছে, তাঁরা চীন, হংকং ও ম্যাকাউ সফর করতে পারবেন না। তাঁদের সঙ্গে সম্পর্কিত ফার্ম ও বিনিয়োগকারীদের চীনে মুনাফা করতে দেওয়া হবে না।

আগে তাইওয়ানের প্রধানমন্ত্রী সু সেং-চাং, পররাষ্ট্রমন্ত্রী জোসেফ উ ও পার্লামেন্ট স্পিকার ইউ সি-কুনের ওপর নিষেধাজ্ঞা দেয় চীন।

তাইওয়ানকে নিজেদের ভূখণ্ড বলে মনে করে চীন। তবে চীনের এই দাবি নাকচ করে আসছে তাইওয়ান। তারা নিজেদের স্বাধীন-সার্বভৌম রাষ্ট্র হিসেবে দেখে।

চীনের হুমকি-ধমকি উপেক্ষা করে ২ আগস্ট তাইওয়ান সফর করেন পেলোসি। তাঁর সফর ঘিরে অঞ্চলটিতে তীব্র উত্তেজনা দেখা দেয়। তাইওয়ানের চারপাশে কয়েক দিন ধরে বড় ধরনের সামরিক মহড়া চালায় চীন।

এ উত্তেজনার রেশ কাটতে না কাটতেই আবার উত্তপ্ত হয়ে উঠেছে তাইওয়ান প্রণালি। মার্কিন আইনপ্রণেতাদের একটি দলের তাইওয়ান সফর ঘিরে গতকাল সোমবার সেখানে আবার সামরিক মহড়া চালিয়েছে বেইজিং।

সূত্র: প্রথম আলো




স্মৃতি ও স্মরণ

ছবি