১৯শে আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ৪ঠা ভাদ্র, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

শুরুতেই বাংলাদেশকে সাফল্য এনে দিলেন মোস্তাফিজ-শরিফুল

আপডেট : আগস্ট ৫, ২০২২ ৬:৩৮ অপরাহ্ণ

17

ভয়েস বাংলা ডেস্ক

ব্যাটিংয়ে নেমে বড় পুঁজি পাওয়ার পর বোলিংয়ের শুরুটাও দুর্দান্ত হলো বাংলাদেশের। দুই বাঁহাতি পেসার মোস্তাফিজুর রহমান ও শরিফুল ইসলাম নিজেদের প্রথম ওভারেই পেলেন উইকেটের স্বাদ। উইকেট উপহার দিয়ে ওপেনাররা সাজঘরে ফেরায় চাপে পড়ল জিম্বাবুয়ে।

হারারেতে তিন ম্যাচ সিরিজের প্রথম ওয়ানডেতে মুখোমুখি হয়েছে জিম্বাবুয়ে ও বাংলাদেশ। টস হেরে ব্যাটিংয়ে নেমে অধিনায়ক তামিম ইকবাল, লিটন দাস, এনামুল হক বিজয় ও মুশফিকুর রহিমের হাফসেঞ্চুরিতে নির্ধারিত ৫০ ওভারে ২ উইকেটে ৩০২ রান তুলেছে টাইগাররা। জবাব দিতে নেমে এই প্রতিবেদন লেখার সময়, ৫ ওভার শেষে স্বাগতিকদের সংগ্রহ ২ উইকেটে ২৪ রান।

ইনিংসের প্রথম ওভারের শেষ বলে জিম্বাবুয়ের অধিনায়ক রেজিস চাকাভাকে বোল্ড করেন মোস্তাফিজ। অফ স্টাম্পের বেশ বাইরের ডেলিভারি জায়গায় দাঁড়িয়ে ক্রস ব্যাটে খেলতে চেয়েছিলেন তিনি। কিন্তু ইনসাইড এজ হয়ে বল মাটিতে একবার ড্রপ খেয়ে ভেঙে দেয় স্টাম্প। ৬ বল খেলা চাকাভার রান ২।

শরিফুলের প্রথম বলেই স্কয়ার দিয়ে বাউন্ডারি হাঁকান আরেক ওপেনার তারিসাই মুসাকান্দা। তিন বল পরই শোধ তোলেন বাংলাদেশের তরুণ পেসার। তবে সেখানে মুসাকান্দার দায়ই বেশি। নির্বিষ বল উড়িয়ে মারতে গিয়ে কভারে মোসাদ্দেক হোসেন সৈকতের হাতে সহজ ক্যাচ দেন তিনি। ৫ বলে ৪ রান করে আউট হন তিনি।

দলীয় ২ রানে প্রথম উইকেট হারানো জিম্বাবুয়ের দ্বিতীয় উইকেটের পতন হয় ৬ রানে। ক্রিজে আছেন ইনোসেন্ট কাইয়া ১৩ ও ওয়েসলি মাধেভেরে ২ রানে।

এর আগে বাংলাদেশের প্রথম ব্যাটার হিসেবে ওয়ানডেতে ৮ হাজার রানের মাইলফলক স্পর্শ করেন তামিম। আরেক ওপেনার লিটনের সঙ্গে তার ১১৯ রানের উদ্বোধনী জুটিতে বড় সংগ্রহের ভিত পেয়ে যায় টাইগাররা।

৮৮ বলে ৬২ রান করে সাজঘরে ফেরেন তামিম। আহত অবসরে যাওয়া লিটন মাঠ ছাড়েন ৮৯ বলে ৮১ রানে। তিন বছর পর ওয়ানডেতে ফিরে এনামুল খেলেন ৬২ বলে ৭৩ রানের আগ্রাসী ইনিংস। অভিজ্ঞ মুশফিক অপরাজিত থাকেন ৪৯ বলে ৫২ রানে। আরেক অভিজ্ঞ মাহমুদউল্লাহ শেষদিকে নেমে ১২ বলে অপরাজিত ২০ রান করেন।

সূত্র: ডেইলি স্টার বাংলা




স্মৃতি ও স্মরণ

ছবি