১৯শে আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ৪ঠা ভাদ্র, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

পেলোসির সফর: তাইওয়ানের আরও পণ্য নিষিদ্ধ করল চীন

আপডেট : আগস্ট ৩, ২০২২ ২:৩৯ অপরাহ্ণ

16

ভয়েস বাংলা ডেস্ক

যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিনিধি পরিষদের স্পিকার ন্যান্সি পেলোসির সফরের জেরে চীনের বাজারে তাইওয়ানের রপ্তানিনিষিদ্ধ পণ্যের তালিকা দীর্ঘ হচ্ছে। পেলোসির এ সফর ঘিরে আগে থেকেই কড়া হুঁশিয়ারি দিয়ে আসছিল চীন।

বিবিসির এক প্রতিবেদনে বলা হয়, আজ বুধবার সকালে তাইওয়ান থেকে লেবুজাতীয় ফল ও দুই ধরনের মাছ আমদানি তাৎক্ষণিক নিষিদ্ধ করে চীনের বাণিজ্য মন্ত্রণালয়। একই সঙ্গে দ্বীপটিতে বালু রপ্তানিও বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। গতকাল মঙ্গলবার বিস্কুট, কনফেকশনারিসহ অন্যান্য পণ্যেও নিষেধাজ্ঞা দিয়েছিল বেইজিং।

চীনের সঙ্গে তাইওয়ানের গভীর বাণিজ্য সম্পর্ক রয়েছে। তাইওয়ানের রপ্তানির প্রায় ৩০ শতাংশই চীনে হয়ে থাকে। তাইপের সবচেয়ে বড় বাণিজ্য অংশীদার হলো বেইজিং। এর আগে গতকাল রাতে নির্ধারিত সময়ের কিছুটা আগেই তাইপে পৌঁছান পেলোসি।

পেলোসির এই সফরে চটেছে চীন। প্রতিবাদ জানাতে বেইজিংয়ে নিযুক্ত মার্কিন রাষ্ট্রদূত নিকোলাস বার্নসকে তলব করেছে দেশটির পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।

চীনের উপপররাষ্ট্রমন্ত্রী শিয়ে ফেং বলেন, পেলোসির এ সফর ‘অসদুদ্দেশ্যপ্রণোদিত’। কঠিন পরিণতির হুঁশিয়ারি দিয়ে তিনি বলেন, চীন অলস বসে থাকবে না।

পেলোসির সফর ঘিরে ওয়াশিংটন ও বেইজিংয়ের মধ্যে উত্তেজনা চলছে। তাইওয়ানের পূর্বাঞ্চলের জলসীমায় যুদ্ধবিমানবাহী একটি রণতরিসহ চারটি যুদ্ধজাহাজ মোতায়েন করেছে চীন। আকাশে চক্কর দিয়েছে চীনা যুদ্ধবিমান।

গত ২৫ বছরের মধ্যে তাইওয়ান সফর করা সবচেয়ে জ্যেষ্ঠ মার্কিন রাজনীতিবিদ পেলোসি। তবে তাঁর এ সফরে প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন সমর্থন দেননি।

তাইওয়ানকে নিজের ভূখণ্ড মনে করে বেইজিং। কিন্তু তাইওয়ানকে স্বাধীন রাষ্ট্র হিসেবেই দেখে দেশটির জনগণ। যুক্তরাষ্ট্র দীর্ঘদিন ধরে তাইওয়ানকে অর্থ ও অস্ত্র দিয়ে সহায়তা করে আসছে।

সূত্র: প্রথম আলো




স্মৃতি ও স্মরণ

ছবি