২৫শে জুন, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ১১ই আষাঢ়, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

নারী দর্শকের কান্নায় কাঁদলেন নায়িকাও

আপডেট : মে ২৩, ২০২২ ৪:৫৩ অপরাহ্ণ

22

ভয়েস বাংলা ডেস্ক

৩৫ বছর আগে এসএসসি পাস করেছেন এ রকম একদল নারী সিনেমা দেখতে গিয়েছিলেন রাজধানীর স্টার সিনেপ্লেক্সে। সিনেমার নাম ‘গলুই’। ছবির নায়িকা পূজা চেরীও ছিলেন ওই প্রদর্শনীতে। শেষ দৃশ্যে হঠাৎ পাশের আসন থেকে কান্নার শব্দ শুনতে পান পূজা। মায়ের বয়সী একজন দর্শককে এভাবে কাঁদতে দেখে নিজেও আবেগাক্রান্ত হন তিনি। তবে এটি তাঁর জীবনের অন্যতম অর্জন বলে মনে করেন ঢালিউড তারকা পূজা চেরী।

ঢাকার ‘এসএসসি ব্যাচ ১৯৮৭’ গ্রুপের দুই শতাধিক সদস্য গত শনিবার সন্ধ্যায় পান্থপথের স্টার সিনেপ্লেক্সে দেখতে যান শাকিব খান ও পূজা চেরী অভিনীত ‘গলুই’। পরিচালক এস এ হক অলিক জানান, তাঁর ক্যারিয়ারে এমন ঘটনা এবারই প্রথম। আর একে বাংলা চলচ্চিত্রের জন্য একটি অসাধারণ ঘটনা বলে মনে করছেন তিনি।

পূজা চেরী বললেন, ‘শনিবার সন্ধ্যায় যাঁরা ছবিটি দেখতে এসেছিলেন, সবাই আমার মায়েরও সিনিয়র। মা–বাবার চেয়েও বয়স্ক দর্শকদের সঙ্গে বসে সিনেমা দেখছি, তাঁরা হাসছেন, অভিনয় দেখে কাঁদছেন—এসব আমাকে ভীষণ রকম আবেগপ্রবণ করেছে। তাঁদের কান্না আমাকেও কাঁদিয়েছে। এমনকি ছবি দেখা শেষে হল থেকে বের হওয়ার সময় বিভিন্ন দৃশ্য ধরে ধরে আমাকে বলছিলেন তাঁরা। শাকিব খানের সঙ্গে আমাকে সুন্দর মানিয়েছে বলেও জানালেন কেউ কেউ। এই দর্শকেরা যখন চুলচেরা বিশ্লেষণ করে এসব বলছিলেন, সেটা আমাকে ভীষণ অনুপ্রাণিত করেছে।’

স্টার সিনেপ্লেক্সের সেদিনের প্রদর্শনীতে মাত্র চার-পাঁচটি আসন খালি ছিল। তৃতীয় সপ্তাহে এসে কোনো ছবির প্রতি দর্শকের এমন আগ্রহ মুগ্ধ করেছে সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিদের। পূজা বললেন, ‘যাঁরা ছবি দেখতে এসেছিলেন, তাঁদের অনেকের সঙ্গেই আমার কথা হয়েছে। কেউ কেউ বলেছেন, তাঁরা ৩৫ বছর পর সিনেমা দেখতে হলে এসেছেন। কেউ ৩২ বছর, আবার কেউ ২৫ বছর। একজন অভিনয়শিল্পী হিসেবে যখন এমন কথা শুনি, তখন যে কত ভালো লাগে, সেটা ভাষায় প্রকাশ করা যাবে না। তা ছাড়া শেষ দৃশ্যে পাশে বসা একজন নারীকে কাঁদতে দেখে তো আমি অবাক হয়ে গেছি। তিনি আমাকে বুকে টেনে নিয়েছেন, দোয়া করেছেন। একজন তরুণ অভিনয়শিল্পী হিসেবে এ ঘটনা আমাকে ভালো কাজে শক্তি ও সাহস জুগিয়েছে।’

পবিত্র ঈদুল ফিতরে মুক্তি পেয়েছে শাকিব খান ও পূজা চেরী অভিনীত ‘গলুই’। তৃতীয় সপ্তাহেও দেশের বেশ কয়েকটি প্রেক্ষাগৃহে ছবিটি চলছে। ছবিটি নিয়ে দর্শকের বেশ আগ্রহ রয়েছে বলে জানালেন ছবির প্রযোজক খোরশেদ আলম।

সূত্র: প্রথম আলো




স্মৃতি ও স্মরণ

ছবি