২৫শে জুন, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ১১ই আষাঢ়, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

দার্জিলিংয়ে বেড়াচ্ছেন কারিনা, স্কুলজীবনের স্মৃতিচারণা

আপডেট : মে ২২, ২০২২ ৩:২৮ অপরাহ্ণ

23

ভয়েস বাংলা ডেস্ক

একে নিশ্চয় রথ দেখা ও কলা বেচা বলা যায়। গেছেন পেশাগত কাজে, শুটিংয়ে। সেখানে মনের মতো ঘুরেও বেড়াচ্ছেন নবাব পরিবারের পুত্রবধূ। শুটিং আর সপরিবার ভ্রমণ—দুটিই একসঙ্গে সারছেন কারিনা। এমনটা হবে না কেন, কারিনা যে এখন আছেন উপমহাদেশের পর্যটনের অন্যতম আর্কষণীয় স্থান দার্জিলিংয়ে। নিজেই জানালেন ভ্রমণটা কতটা উপভোগ্য তাঁর কাছে। পুরোনো দিনের স্মৃতিচারণাও করলেন। শেয়ার করলেন স্কুলজীবনে ঘুরে বেড়ানোর ছবি।

সুজয় ঘোষের ওয়েব সিরিজ ‘ভিডিশন’-এর শুটিং চলছে দার্জিলিংয়ে। তাই ১২ দিন ধরে দার্জিলিংয়েই আছেন কারিনা ও তাঁর ছোট ছেলে জেহ। স্ত্রীর সঙ্গে সময় কাটাতে বড় ছেলে তৈমুরকে নিয়ে দিন কয়েক আগে পাহাড়ে এসে উপস্থিত হয়েছেন সাইফ আলী খানও।

দার্জিলিংয়ে গিয়ে কখনো পুরোনো বন্ধুর সঙ্গে দেখা করছেন কারিনা, কখনো আবার স্থানীয় লোকজনের সঙ্গে সময় কাটাচ্ছেন। এর মাঝেই দুই ছেলে ও সাইফের সঙ্গে দার্জিলিংয়ের উইন্ডামেরে হোটেলে ফ্যানদের সঙ্গে লেন্সবন্দী হলেন কারিনা। ছবিতে হাসিমুখে দেখা গেল কারিনা, সাইফকে। কারিনার এই দার্জিলিং ডায়েরির ছবিতে মুগ্ধ নেটপাড়া। তবে সব ছাপিয়ে বেশি সাড়া ফেলেছে পুরোনো কিছু ছবি, যা কারিনা নিজেই শেয়ার করেছেন ইনস্টাগ্রামে। কেন?

কারণ, দার্জিলিংয়ে গিয়ে বহুদিনের পুরোনো এক বান্ধবীর সঙ্গে তাঁকে দেখা গেছে। তাই তো স্কুলবেলার ছবি দিয়ে আবেগে ভাসলেন। আপ্লুত হয়ে নিজেই সে খবর দিলেন। ছবি শেয়ার করলেন স্কুলবেলার। কারিনার বয়স তখন ১৪। উত্তরাখন্ডের দেরাদুনের ওয়েলহাম গার্লস স্কুলে পড়ার সময় কারিনার কাছের বন্ধু ছিলেন এই পাহাড়ি কন্যা। তারপর সময়ের সঙ্গে সঙ্গে যোগাযোগ হারিয়েছে। কিন্তু কালিম্পংয়েই দেখা মিলল সেই বান্ধবীর। কারিনার স্কুলের একাধিক প্রাক্তনী এই ছবিতে মন্তব্য করেন। ছবিটি ১৯৯৬ সালের। স্কুল থেকে একসঙ্গে রাজস্থান ভ্রমণে গিয়েছিলেন তাঁরা।

স্কুলজীবনের স্মৃতিচারণা করতে গিয়ে এক সাক্ষাৎকারে কারিনা বলেছিলেন, মা ববিতা তাঁকে জোর করে বোর্ডিং স্কুলে ভর্তি করিয়ে দেন। কারণটা ছিল আরও মজার। সে এক প্রেমের গল্প! কিশোরী কারিনা তখন এক কিশোরের প্রেমে পড়েছিলেন। বিভিন্ন বাহানায় কাপুর পরিবারের এই সদস্য দেখা করতেন ওই কিশোরের সঙ্গে। মা বাড়ি না থাকলে তালাবন্ধ করে রেখে যেতেন কারিনাকে। সেই তালা ভেঙেও বেরিয়ে গিয়েছিলেন একবার। এরপরই মা ববিতা আর ঝুঁকি নেননি। মেয়েকে পাঠিয়ে দেন তৎকালীন নাম করা স্কুল দেরাদুনের ওয়েলহাম গার্লসে।

এত দিন পর কারিনা সেসব দিনের স্মৃতিচারণা করলেন। এখন তো জীবনটা অনেকটাই বদলে গেছে। নবাব পরিবারের পুত্রবধূ। তার আগেই সাফল্যের চূড়ায় পৌঁছে গেছেন। বলিউডের শীর্ষ তারকা কারিনা। তবে ভুলে যান না স্কুলজীবনের কথা। সে কথা বারবার স্বীকার করেন অভিনেত্রী। কাজের জগৎ যেভাবে সামলান, যেভাবে প্রতিমুহূর্তে পরিস্থিতির মোকাবিলা করেন, তা–ও স্কুলেরই শিক্ষা। সেই সঙ্গে পাওনা ওয়েলহাম–কন্যাদের সখ্য, যা আজও ভুলতে পারেননি অভিনেত্রী।

 ‘ভিডিশন’-এর সঙ্গে ওটিটি প্ল্যাটফর্মে যাত্রা শুরু করছেন কারিনা। সুজয় ঘোষের এই সিরিজে কারিনা ছাড়াও থাকবেন জয়দীপ এহলাওয়াত ও বিজয় বর্মা। জাপানি রহস্য রোমাঞ্চ ঔপন্যাসিক কিগো হিগাশিনোর ‘দ্য ডিভোশন অব সাসপেক্ট এক্স’ অবলম্বনে তৈরি হচ্ছে এ ছবি, যার শুটিং হচ্ছে কালিম্পংয়ে পাহাড়ের কোলে। মুখ্য ভূমিকায় অভিনয় করছেন কারিনা। ভবিষ্যতে কারিনাকে দেখা যাবে ‘লাল সিং চড্ডা’ ছবিতে। এই ছবিতে আবারও আমির খানের সঙ্গে জুটিতে দেখা যাবে কারিনাকে। অদ্বৈত চন্দন পরিচালিত এ ছবি মুক্তি পাবে আগামী ১১ আগস্ট।

সূত্র: প্রথম আলো




স্মৃতি ও স্মরণ

ছবি