২৫শে জুন, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ১১ই আষাঢ়, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

এরদোয়ানকে ‘ষাঁড়’ বলে কারাগারে নারী সাংবাদিক

আপডেট : জানুয়ারি ২৩, ২০২২ ২:০৬ অপরাহ্ণ

39

ভয়েস বাংলা ডেস্ক

তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রেচেপ তাইয়েব এরদোয়ানকে অপমান করার অভিযোগে সুপরিচিত সাংবাদিক সেদেফ কাবাসকে আটকের নির্দেশ দিয়েছে দেশটির আদালত।

ইতোমধ্যে ইস্তাম্বুল থেকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে কাবাসকে। বিচারের আগে তাকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দিয়েছে আদালত।

এই নারী সাংবাদিকের বিরুদ্ধে অভিযোগ, তিনি বিরোধী দল সংশ্লিষ্ট এক টিভি চ্যানেলের লাইভে এসে প্রেসিডেন্ট এরদোয়ানকে অপমান করেছেন। ওই অনুষ্ঠানে এক প্রবাদ বাক্য বলেন কাবাস। যা এরদোয়ানকে অপমান করা হয়েছে বলে মনে করা হচ্ছে।

টেলিওয়ান চ্যানেলকে তিনি বলেন, ‘খুবই এক বিখ্যাত প্রবাদ আছে এমন, মুকুট মাথা বুদ্ধিমান হয়। কিন্তু আমরা দেখছি, তা সত্য নয়।’

কাবাস আরও বলেন, ‘রাজপ্রাসাদে ঢুকলেই ষাঁড় কখনো রাজা হতে পারে না। তবে রাজপ্রাসাদ গোয়ালঘর হয়ে যায়।’ পরে এই প্রবাদটি টুইটও করেন তিনি।

কিন্তু কাবাসের এমন কথায় খেপেছে এরদোয়ান সরকার। প্রেসিডেন্টের প্রধান মুখপাত্র ফাহরেত্তিন আলতুন এই মন্তব্য বর্ণনা করে কাবাসকে উদ্দেশ্য করে বলেন, ‘দায়িত্বজ্ঞানহীন’।

টুইটারে তার জবাব, ‘এক কথিত সাংবাদিক টেলিভিশন চ্যানেলে চরমভাবে আমাদের প্রেসিডেন্টকে অপমান করেছেন। ঘৃণা ছড়ানো ছাড়া যার কোনো লক্ষ্য নেই।’

অভিযোগ প্রমাণিত হলে এক থেকে চার বছরের কারাদণ্ড হতে পারে কাবাসের। তব এই অভিযোগ অস্বীকার করছেন তিনি। আদালতে দেওয়া এক বিবৃতিতে কাবাস জানান, প্রেসিডেন্টকে অপমান করার কোনো অভিপ্রায় তার ছিল না।

সূত্র: দেশ রূপান্তর




স্মৃতি ও স্মরণ

ছবি