২৪শে জানুয়ারি, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ১০ই মাঘ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

সাকিব–তাসকিনকে নিয়েই মিরপুর টেস্টের দল

আপডেট : নভেম্বর ৩০, ২০২১ ৭:২১ অপরাহ্ণ

28

ভয়েস বাংলা ডেস্ক

চোটে পড়ায় পাকিস্তানের বিপক্ষে চট্টগ্রামে প্রথম টেস্টে খেলেননি সাকিব আল হাসান। ৪ ডিসেম্বর থেকে শুরু মিরপুরের দ্বিতীয় টেস্টে তিনি খেলবেন কি না, তা নিয়েও ছিল সংশয়।

কিন্তু সাকিব ফিট হয়ে ওঠায় তাঁকে নিয়েই আজ দ্বিতীয় টেস্টের জন্য ২০ সদস্যের দল ঘোষণা করেছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। সাকিব ছাড়াও দলে ফিরেছেন চোট থেকে ফেরা পেসার তাসকিন আহমেদ। প্রথমবারের মতো টেস্ট দলে ডাক পেয়েছেন মোহাম্মদ নাঈম।

নাঈমকে দলে নেওয়ার ব্যাখ্যা দিয়ে প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদীন বলেছেন, ‘আমাদের ওপেনাররা ভালো করছে না, বারবার ব্যর্থ হচ্ছে। সে জন্যই ওকে নেওয়া। আর নাঈম তো এই কোচিং স্টাফের অধীনে অনেক দিন ধরে একটা প্রক্রিয়ার মধ্যেও আছে।’ কোচিং স্টাফ এবং নির্বাচকদেরও আশা—টেস্টে নিজের সামর্থ্যের প্রমাণ দেবেন নাঈম।

সাকিব, তাসকিন দুজনই দলে থাকলেও মিনহাজুল জানিয়েছেন, তাসকিন এখনো পুরোপুরি ফিট নন, ‘তাসকিন মিরপুর টেস্টে খেলবে কিনা, সেটা নিয়ে এখনও কিছুটা সংশয় আছে। তবে সামনে নিউজিল্যান্ড সফর। সে জন্য জৈব সুরক্ষাবলয়ে রেখেই তাকে প্রস্তুত করতে হবে।’

চট্টগ্রাম টেস্টে পাকিস্তানের কাছে আজ ৮ উইকেটে হেরেছে বাংলাদেশ দল। আগামী শনিবার মিরপুরে শুরু হবে সিরিজের দ্বিতীয় ও শেষ টেস্ট। চট্টগ্রাম টেস্টের জন্য ঘোষিত দলেও সাকিবকে রাখা হয়েছিল।

কিন্তু বলা হয়েছিল, ফিট হওয়া সাপেক্ষে তিনি খেলবেন। পরে চোট সেরে না ওঠায় চট্টগ্রাম টেস্টে আর খেলতে পারেননি এই অলরাউন্ডার। দ্বিতীয় টেস্টের আগে ফিট হয়ে ওঠায় দলে রাখা হয়েছে সাকিবকে। চট্টগ্রাম টেস্টের দল থেকে কেউ বাদ পড়েননি।

রেজাউর রহমান ও মাহমুদুল হাসান চট্টগ্রাম টেস্টের দলেই ডাক পান প্রথমবারের মতো। টেস্ট শুরুর আগের দিন দলে ডাকা হয় দুই পেসার খালেদ আহমেদ ও শহীদুল ইসলামকে। এই চার খেলোয়াড়কে মিরপুর টেস্টের দলেও রাখা হয়েছে। তাঁদের সঙ্গে যোগ দিয়েছেন তাসকিন ও নাঈম।

২টি ওয়ানডে ও ৩২ টি-টোয়েন্টি খেলা নাঈম প্রথম শ্রেণির ম্যাচ খেলেছেন ৬টি। তবে প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে চোখে পড়ার মতো কিছু করেননি তিনি। ১৬.৬৩ গড়ে রান করেছেন ১৮৩। ৪টি অর্ধশতক পেলেও কোনো শতক নেই।

মিরপুর টেস্টের বাংলাদেশ দল: মুমিনুল হক (অধিনায়ক), সাদমান ইসলাম, সাইফ হাসান, নাজমুল হোসেন, মুশফিকুর রহিম, সাকিব আল হাসান, লিটন দাস, ইয়াসির আলী, নুরুল হাসান, মেহেদী হাসান মিরাজ, তাইজুল ইসলাম, তাসকিন আহমেদ, ইবাদত হোসেন, আবু জায়েদ, নাঈম হাসান, মাহমুদুল হাসান, রেজাউর রহমান, খালেদ আহমেদ, শহীদুল ইসলাম ও মোহাম্মদ নাঈম।

সূত্র: প্রথম আলো