৩রা অক্টোবর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ১৮ই আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

রাষ্ট্রপতির শিল্প উন্নয়ন পুরষ্কার থেকে তামাক কোম্পানি বাদ, আন্দোলনের অর্জণ, বলছে ভয়েস

আপডেট : আগস্ট ২২, ২০২১ ১০:১৭ অপরাহ্ণ

175

ভয়েস বাংলা ডেস্ক

তামাক ও তামাকজাত পণ্য উৎপাদনকরী প্রতিষ্ঠানকে রাষ্ট্রপতির শিল্প উন্নয়ন পুরষ্কারের জন্য অযোগ্য ঘোষণা করাকে দেশের তামাক বিরোধী আন্দোলনের একটি সাফল্য। এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ কথা বলেছে, বেসরকারি সংস্থা ভয়েস ফর ইন্টারঅ্যাকটিভ চয়েজ এন্ড এমপাওয়ারমেন্ট-ভয়েস।

সংগঠনের নির্বাহী পরিচালক আহমেদ স্বপন মাহমুদ এক বিবৃতিতে এ কথা বলেছেন।

রাষ্ট্রপতির শিল্প উন্নয়ন পুরস্কার-২০১৮ প্রাপ্তদের তালিকা থেকে বহুজাতিক তামাক উৎপাদন ও বিপণন প্রতিষ্ঠান ব্রিটিশ আমেরিকান টোবাকো বাংলাদেশের (বিএটিবি) নাম বাদ দেওয়ার দাবি জানিয়ে ১৯ মার্চ ২০২০ তামাক বিরোধী সংগঠন ভয়েস সংবাদ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে। ভয়েসসহ তামাকবিরোধী সংগঠনসমূহের তীব্র প্রতিবাদ সত্ত্বেও বিগত কয়েক বছর ধরে বহুজাতিক তামাক কোম্পানি ব্রিটিশ আমেরিকান টোব্যাকো বাংলাদেশ (বিএটিবি) এই পুরস্কার পেয়ে আসছিল।

ভয়েসের নির্বাহী পরিচালক আহমেদ স্বপন মাহমুদ বলেন, জনস্বাস্থ্য রক্ষার জন্য তামাক নিয়ন্ত্রণ আইন বাস্তবায়ন জরুরি এবং সরকারকে এই দায়িত্বশীলতার আচরণ অত্যন্ত সময়োপযোগী এবং প্রশংসনীয়। যে সংস্থাটি বাংলাদেশের উল্লেখযোগ্য অর্থনৈতিক ক্ষতি ঘটানোর পাশাপাশি বড় ধরনের স্বাস্থ্যবিপর্যয় ঘটাচ্ছে সে কোম্পানিকে পুরস্কার দেওয়া নীতিবিবর্জিত। বেসরকারি সংস্থা ভয়েস বলেছে, শিল্পমন্ত্রণালয়ের এই পদক্ষেপ অত্যন্ত সময়োপযোগী এবং প্রশংসনীয়।

বিশ্বস্বাস্থ্য সংস্থার ফ্রেমওয়ার্ক কনভেনশন অন টোবাকো কন্ট্রোল(এফটিটিসি) এর ৫.৩অনুচ্ছেদ উল্লেখ করে আহমেদ স্বপন বলেন, সরকার দায়বদ্ধ আর্টিকেল ৫.৩ বাস্তবায়নে, যেখানে স্বাস্থ্য রক্ষার জন্য তামাকজাত পণ্য ও কোম্পানিগুলোকে আইন অনুযায়ী নিয়ন্ত্রণ করতে বলা হয়েছে। বাংলাদেশ এফটিটিসি কনভেনশনে স্বাক্ষরকারী একটি দেশ। আমরা আশা করছি আমরা এর উপর প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ দেখতে পাবো।

সম্প্রতি শিল্পমন্ত্রণালয় রাষ্ট্রপতির শিল্প উন্নয়ন পুরস্কারের নতুন নীতিমালা প্রকাশ করেছে যেখানে তামাক ও তামাক জাতীয় পণ্য উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠানগুলোকে অযোগ্য ঘোষণা করা হয়েছে। এমন এক সময় শিল্পমন্ত্রণালয় এই পদক্ষেপ নিল যখন বাংলাদেশ করোনা ভাইরাস মহামারি অতিক্রম করছে এবং বিশ্বস্বাস্থ্য সংস্থা তামাককে করোনা সংক্রমণ সহায়ক হিসেবে চিহ্নিত করে এর ব্যবহার নিরুৎসাহিত করার আহ্বান জানিয়েছে।




স্মৃতি ও স্মরণ

ছবি