৩রা অক্টোবর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ১৮ই আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

বিয়ের অনুষ্ঠানে আওয়ামী লীগের দু’পক্ষের সংঘর্ষে নিহত ২

আপডেট : মে ২০, ২০২১ ৯:৫৭ অপরাহ্ণ

121

ভয়েস বাংলা ডেস্ক

বরিশাল জেলার মেহেন্দিগঞ্জ উপজেলায় একটি বিয়ের অনুষ্ঠানে আওয়ামী লীগের দু’পক্ষের সংঘর্ষে দু’জন নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় আরো পাঁচজন আহত হয়েছেন। পুলিশ চারজনকে আটক করেছে। এলাকায় থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে।

ঘটনা তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেয়ার কথা বলেছেন বরিশালের পুলিশ সুপার।

বৃহস্পতিবার (২০ মে) বেলা ১১টার দিকে মেহেন্দিগঞ্জ উপজেলার উত্তর উলানিয়া ইউনিয়নের সলদি গ্রামে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

ঘটনাস্থলে আওয়ামী লীগ কর্মী সিদ্দিকুর রহমান (৫০) নিহত হন। আহত হন আরো ছয়জন। গুরুতর অবস্থায় বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়ার পথে আব্দুস সাত্তার ঢালী (৫৭) নামে আরো এক আওয়ামী লীগ কর্মীর মৃত্যু হয়।

মেহেন্দিগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবুল কালাম মুঠোফোনে জানান, উত্তর উলানিয়া ইউনিয়নের সলদি গ্রামে একটি বিয়ের অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন ধুলখোলা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি কালাম বেপারী এবং ইউনিয়ন যুবলীগের আহ্বায়ক জামাল রাঢ়ী। উলানিয়া ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন নিয়ে বিবদমান ওই দু’পক্ষে আগে থেকেই বিরোধ চলে আসছিল। বিয়ের অনুষ্ঠানে কালাম ও জামালের কর্মী-সমর্থকদের মধ্যে প্রথমে উত্তেজনা সৃষ্টি হয়। উত্তেজনার জের ধরে সংঘর্ষে জড়িয়ে পরে দু’পক্ষ। একপর্যায়ে উভয়পক্ষ লাঠিসোটা ও ধারাল অস্ত্র নিয়ে সংঘর্ষে জড়ায়। এতে ঘটনাস্থলে আওয়ামী লীগ কর্মী সিদ্দিকুর রহমান নিহত হন। আহত হন আরো অন্তত ছয়জন। এদের মধ্যে গুরুতর অবস্থায় বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়ার পথে আব্দুস সাত্তার ঢালী নামে আরো এক আওয়ামী লীগ কর্মীর মৃত্যু হয়। আহত অন্যদের স্থানীয় স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সসহ বরিশাল শেবাচিম হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

বরিশালের পুলিশ সুপার মো. মারুফ হোসেন জানান, হামলা-সংঘর্ষ ও হত্যার ঘটনা তদন্ত করে মামলা দায়েরসহ আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে। এ ঘটনায় প্রাথমিকভাবে চারজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন তিনি।

মেহেন্দিগঞ্জের উত্তর উলানিয়া ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন নিয়ে এর আগেও একাধিকবার হামলা-সংঘর্ষ ও মোটরসাইকেলে অগ্নিসংযোগের ঘটনা ঘটে। এসব ঘটনায় এর আগেও একজন নিহত এবং বেশ কয়েকজন হতাহত হয়। ব্যাপক সহিংসতার কারণে উত্তর উলানিয়া ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন স্থগিত করেছে নির্বাচন কমিশন।




স্মৃতি ও স্মরণ

ছবি