৮ই ডিসেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ২৩শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

রূপকথা লিখতে হবে লিটন-মিরাজকে

আপডেট : মে ২, ২০২১ ৭:৩১ অপরাহ্ণ

181

ভয়েস বাংলা ডেস্ক

পাল্লেকেলে টেস্টে বাংলাদেশের পরাজয় এখন সময়ের ব্যাপার মাত্র। যদি না প্রকৃতি সাহায্যের হাত বাড়ায়! অথবা লিটন দাস ও মেহেদী হাসান মিরাজ শেষ দিনে কোনো রূপকথার গল্প লেখেন।

অবশ্য এ কথাগুলোও এখন রসিকতা মনে হতে পারে। শ্রীলঙ্কা তো ৪৩৭ রানের লক্ষ্য ছোড়ে দিয়েই বাংলাদেশকে এক রকম ম্যাচ থেকে ছিটকে দিয়েছে। কারণ টেস্ট ইতিহাসেই এত বড় লক্ষ্য তাড়া করে ম্যাচ জয়ের রেকর্ড নেই কারো। তবে টেস্ট বাঁচানোর লড়াইটা তো করতেই পারত বাংলাদেশ। সেই জায়গা থেকেও মুমিনুল হকের দল দূরে গেছে অনেকটাই।

রবিবার দিনের খেলা ১২ ওভার বাকি থাকতে আলোকস্বল্পতায় থেমে যায়। পরে আর খেলা শুরু হতে পারেনি। এর আগ পর্যন্ত বাংলাদেশ ৫ উইকেট হারিয়ে ১৭৭ রান তুলতে পারে। শেষ দিনে এই টেস্ট জিততে হলে ২৬০ রান করতে হবে বাংলাদেশকে। শ্রীলঙ্কার চাই ৫ উইকেট।

স্বীকৃতি ব্যাটসম্যানদের শেষ জুটি এখন ব্যাট করছে। লিটন দাস ১৪ ও মেহেদী হাসান মিরাজ ৪ রানে অপরাজিত আছেন। এরপর যারা আছেন তারা সবাই বোলার। অর্থাৎ যা করার লিটন-মিরাজকেই করতে হবে।

আগের দিনের ২ উইকেটে ১৭ রান নিয়ে দিন শুরু করা শ্রীলঙ্কা লাঞ্চের পর ইনিংস ঘোষণা করে ৯ উইকেটে ১৯৪ রান তুলে। তাতে বাংলাদেশের সামনে বিশাল লক্ষ্য দাঁড়ায়। প্রথম ইনিংসে ২৪২ রানের লিড পেয়েছিল লঙ্কানরা। ৭ উইকেটে ৪৯৩ রান তুলে স্বাগতিকদের ইনিংস ঘোষণার পর বাংলাদেশের প্রথম ইনিংস থেমেছিল ২৫১ রানে।

রেকর্ড বলছে বাংলাদেশ কখনো ২১৫ রানের বেশি তাড়া করে টেস্ট ম্যাচ জিততে পারেনি। দেশের বাইরে চতুর্থ ইনিংসে তাদের সর্বোচ্চ রান ২৮২।

সূত্র: দেশ রূপান্তর




স্মৃতি ও স্মরণ

ছবি