২৫শে সেপ্টেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ১০ই আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

নড়াইলে ইউপি চেয়ারম্যান ও সচিবের বিরুদ্ধে দুদকের মামলাঃ আসামীদের গ্রেফতারে পুলিশের অভিযান অব্যাহত

আপডেট : এপ্রিল ২৫, ২০২০ ৮:২৫ অপরাহ্ণ

486

নড়াইলের কালিয়া উপজেলার নড়াগাতির জয়নগর ইউপি চেয়ারম্যান আলাউদ্দিন চৌধুরী ও ওই ইউপির সচিবের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছে দুদক। দুদকের সমন্বিত জেলা কার্যালয় যশোরের সহকারি পরিচালক মোঃ মাহফুজ ইকবাল বাদি হয়ে বৃহস্পতিবার (২৩ এপ্রিল) যশোর দুদক কার্যালয় মামলাটি দায়ের করেন। উজ্জ্বল রায় নিজস্ব প্রতিবেদক নড়াইল থেকে জানান, মামলার বিবরণে জানা যায়, করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে হোম কোয়ারেন্টিনে থাকাসহ সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখতে কর্মহীন হয়ে পড়ে মানুষ। উপজেলার জয়নগর ইউনিয়নের ৪নম্বর ওয়ার্ডের ৫০জন হতদরিদ্রের মধ্যে ২২জনের চাল বন্টন করা হয়। এরপর বাকি ২৮জন তালিকাভূক্ত হতদরিদ্রদের চাল না দিয়ে চেয়ারম্যান ১২এপ্রিল ২৮ জনের নামের ভূয়া মাষ্টাররোল সংশ্লিষ্ট দফতরে দাখিল করেন।

উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মোঃ আজিমুদ্দিনের কাছে ওই চাল বিতরণে অনিয়মের মৌখিক অভিযোগ আসে। তখন তিনি ও ইউএনও মোঃ নাজমুল হুদা সরেজমিন তদন্তের পর ২৮জন হতদরিদ্রের বরাদ্দকৃত ২৮০কেজি চাল ওই ইউপির চেয়ারম্যান আলাউদ্দিন চৌধুরী ও সচিব মোঃ মহিদুল ইসলাম ত্মসাত করেছেন বলে প্রমানিত হয়।

এ কারণে ২১এপ্রিল উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা সৈয়দ আজিম উদ্দিন ইউএনওর মাধ্যমে উপজেলার নড়াগাতি থানায় অভিযোগ দায়ের করেন। নড়াগাতি থানার ওসি জিডি করে অভিযোগটি দুদকের সমন্বিত জেলা কার্যালয়, যশোরে প্রেরণ করেন।এরপর দুদকের সহকারি পরিচালক মোঃ মাহফুজ ইকবাল বাদি হয়ে বৃহস্পতিবার মামলাটি দায়ের করেন।

এ বিষয় দুদকের সমন্বিত জেলা কার্যালয়,যশোরের উপ-পরিচালক মোঃ নাজমুস সাদাত বলেন, ‘আসামীদের গ্রেফতারের অভিযান অব্যাহত আছে। তাদের গ্রেফতারের জন্য নড়াইলের নড়াগাতি থানা পুলিশও তৎপর আছে। উজ্জ্বল রায় নিজস্ব প্রতিবেদক নড়াইল।নড়াইলে ইউপি চয়োরম্যান ও সচবিরে বরিুদ্ধদেুদকরে মামলাঃআসামীদরে গ্রফেতারে পুলশিরে অভযিান অব্যাহত
উজ্জ্বল রায় নজিস্ব প্রতবিদেক নড়াইল।।

নড়াইলরে কালয়িা উপজলোর নড়াগাতরি জয়নগর ইউপি চয়োরম্যান আলাউদ্দনি চৌধুরী ও ওই ইউপরি সচবিরে বরিুদ্ধে মামলা দায়রে করছেে দুদক। দুদকরে সমন্বতি জলো র্কাযালয় যশোররে সহকারি পরচিালক মোঃ মাহফুজ ইকবাল বাদি হয়ে বৃহস্পতবিার (২৩ এপ্রলি) যশোর দুদক র্কাযালয় মামলাটি দায়রে করনে। উজ্জ্বল রায় নজিস্ব প্রতবিদেক নড়াইল থকেে জানান, মামলার ববিরণে জানা যায়, করোনা ভাইরাস প্রতরিোধে হোম কোয়ারন্টেনিে থাকাসহ সামাজকি দূরত্ব বজায় রাখতে র্কমহীন হয়ে পড়ে মানুষ। উপজলোর জয়নগর ইউনয়িনরে ৪নম্বর ওর্য়াডরে ৫০জন হতদরদ্রিরে মধ্যে ২২জনরে চাল বন্টন করা হয়। এরপর বাকি ২৮জন তালকিাভূক্ত হতদরদ্রিদরে চাল না দয়িে চয়োরম্যান ১২এপ্রলি ২৮ জনরে নামরে ভূয়া মাষ্টাররোল সংশ্লষ্টি দফতরে দাখলি করনে।

উপজলো প্রকল্প বাস্তবায়ন র্কমর্কতা মোঃ আজমিুদ্দনিরে কাছে ওই চাল বতিরণে অনয়িমরে মৌখকি অভযিোগ আসে। তখন তিনিও ইউএনও মোঃ নাজমুল হুদা সরজেমনি তদন্তরে পর ২৮জন হতদরদ্রিরে বরাদ্দকৃত ২৮০কজেি চাল ওই ইউপরি চয়োরম্যান আলাউদ্দনি চৌধুরী ও সচবি মোঃ মহদিুল ইসলাম আত্মসাত করছেনে বলে প্রমানতি হয়।

এ কারণে ২১এপ্রলি উপজলো প্রকল্প বাস্তবায়ন র্কমর্কতা সয়ৈদ আজমি উদ্দনি ইউএনওর মাধ্যমে উপজলোর নড়াগাতি থানায় অভযিোগ দায়রে করনে। নড়াগাতি থানার ওসি জডিি করে অভযিোগটি দুদকরে সমন্বতি জলো র্কাযালয়, যশোরে প্ররেণ করনে।এরপর দুদকরে সহকারি পরচিালক মোঃ মাহফুজ ইকবাল বাদি হয়ে বৃহস্পতবিার মামলাটি দায়রে করনে।

এ বষিয় দুদকরে সমন্বতি জলো র্কাযালয়,যশোররে উপ-পরচিালক মোঃ নাজমুস সাদাত বলনে, ‘আসামীদরে গ্রফেতাররে অভযিান অব্যাহত আছে তাদরে গ্রফেতাররে জন্য নড়াইলরে নড়াগাতি থানা পুলশিও তৎপর আছে।’

উজ্জ্বল রায় নজিস্ব প্রতবিদেক নড়াইল।




স্মৃতি ও স্মরণ

ছবি