২৪শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ১১ই ফাল্গুন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

১৬ জানুয়ারি টিকাকরণ কর্মসূচির সূচনা করবেন ভারতীয় প্রধানমন্ত্রী

আপডেট : জানুয়ারি ১৪, ২০২১ ১০:২৮ পূর্বাহ্ণ

17

ভয়েস বাংলা ডেস্ক

১৬ জানুয়ারি থেকে দেশ জুড়ে কোভিডের টিকাকরণ কর্মসূচি শুরু হবে। দেশের এই বৃহত্তম টিকারকরণ কর্মসূচির ভার্চুয়ালি সূচনা করবেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। সূত্রের খবর, ওই দিন তিনি আনুষ্ঠানিক ভাবে কো-উইন অ্যাপেরও সূচনা করবেন।

টিকা নিয়ে নানা পর্যালোচনা এবং পর্যবেক্ষণের পর এক বিবৃতিতে ভারত সরকার জানিয়েছিল, সামনেই লোহরি, মকর সংক্রান্তি, পোঙ্গল, মাঘ বিহু-র মতো বেশ কয়েকটি উৎসব আছে। তাই টিকাকরণ কর্মসূচি ১৬ জানুয়ারি থেকে শুরু করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হল।

দেশে জরুরি ভিত্তিতে টিকা প্রয়োগের ছাড়পত্র পেয়েছে সিরাম ইনস্টিটিউট এবং ভারত বায়োটেক। মঙ্গলবার থেকেই দেশের নানা প্রান্তে টিকা সরবরাহের কাজ শুরু করেছে সিরাম ইনস্টিটিউট। বুধবার ভারত বায়োটেক-ও টিকা সরবরাহ শুরু করেছে। সিরামের কাছ প্রাথমিক পর্বে থেকে ১ কোটি ১০ লক্ষ টিকার ডোজ কেনার সিদ্ধান্ত নিয়েছে কেন্দ্র। গড়ে কোভিশিল্ডের দাম পড়ছে ডোজ পিছু ২০০ টাকা।

অন্য দিকে, ভারত বায়োটেকের কাছ থেকে ৫৫ লক্ষ টিকার ডোজ কেনার লক্ষ্যমাত্রা নিয়েছে সরকার। প্রতি ডোজ় ২৯৫ টাকা হিসাবে ৩৮.৫ লক্ষ কোভ্যাক্সিন কেনার সিদ্ধান্ত নওয়া হয়েছে। ১৬.৫ লক্ষ ডোজ় কোভ্যাক্সিন সরকারকে বিনামূল্যে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে ভারত বায়োটেক। অর্থাৎ, ৫৫ লক্ষ কোভ্যাক্সিনের জন্য প্রতি ডোজ় পিছু গড়ে ২০৬ টাকা খরচ করতে হচ্ছে সরকারকে।

প্রথম পর্বে তিন কোটি স্বাস্থ্যকর্মী এবং সামনের সারির করোনা যোদ্ধাদের এই টিকা দেওয়া হবে। তার পর পঞ্চাশোর্ধ্ব এবং পঞ্চাশের নীচে যাঁরা নানা রকম রোগে আক্রান্ত ( কোমর্বিডিটি) এ রকম প্রায় ২৭ কোটি মানুষকে টিকা দেওয়া হবে বলে জানিয়েছে সরকার।

সূত্র: আনন্দবাাজার পত্রিকা