৮ই মার্চ, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ২৩শে ফাল্গুন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

শৈলকুপায় কাউন্সিলর প্রার্থীর ভাই খুনের ৫ ঘণ্টা পর প্রতিপক্ষ প্রার্থীর লাশ উদ্ধার

আপডেট : জানুয়ারি ১৪, ২০২১ ২:২৯ অপরাহ্ণ

25

ভয়েস বাংলা ডেস্ক

ঝিনাইদহের শৈলকুপায় পৌরসভা নির্বাচনে এক কাউন্সিলর প্রার্থীর ভাই খুনের মাত্র পাঁচ ঘণ্টা পর প্রতিপক্ষ প্রার্থী আলমগীর খান ওরফে বাবুর লাশ কুমার নদ থেকে উদ্ধার করেছে পুলিশ। গতকাল বুধবার দিবাগত রাত একটার দিকে শৈলকুপা উপজেলার দেবতলা-বারইপাড়া এলাকা থেকে তাঁর লাশ উদ্ধার করা হয়।

আলমগীর খান শৈলকুপা পৌরসভা এলাকার কবিরপুর গ্রামের জালাল আহম্মেদ খানের ছেলে এবং আসন্ন শৈলকুপা পৌরসভা নির্বাচনে ৮ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর প্রার্থী ছিলেন। তাঁর প্রতীক ছিল পাঞ্জাবি।

নির্বাচনের আর মাত্র দুদিন বাকি। এ অবস্থায় নির্বাচনী পরিবেশ সংঘাতময় হয়ে উঠেছে। সাধারণ ভোটারদের মধ্যে আতঙ্ক দেখা দিয়েছে। তাঁরা সুষ্ঠু নির্বাচন নিয়ে সংশয় প্রকাশ করেছেন। ইতিমধ্যে শহরের মোড়ে মোড়ে পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।বিজ্ঞাপন

প্রসঙ্গত, গতকাল রাত আটটার দিকে কবিরপুর এলাকায় নির্বাচনী গণসংযোগ চালানোর সময় ডালিম প্রতীকের কাউন্সিলর প্রার্থী শওকত আলীর ভাই ও উমেদপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক লিয়াকত ইসলাম ওরফে বল্টু খুন হন। এই ঘটনায় মাত্র পাঁচ ঘণ্টা পর প্রতিপক্ষ প্রার্থী আলমগীর খানের লাশ উদ্ধার হলো।

দেবতলা গ্রামের কয়েকজনের ভাষ্য, রাতে তাঁরা দুজনকে সাঁতরে নদী পার হতে দেখেছেন। এর কিছুক্ষণ পর লোকজনকে চিৎকার করতে শোনা যায়। গ্রামের বাসিন্দা জয়নাল আলী বলেন, নিহত আলমগীর খানের স্বজনেরা রাতে তাঁকে খুঁজছিলেন। একপর্যায়ে নদীর পানিতে মৃত অবস্থায় পাওয়া যায় তাঁকে। খবর দিলে শৈলকুপা থানার পুলিশ গিয়ে তাঁর লাশ উদ্ধার করে।

এ ব্যাপারে শৈলকুপা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জাহাঙ্গীর আলম সাংবাদিকদের বলেন, আলমগীর খানের মৃত্যুটি কীভাবে হয়েছে, তা তাঁরা নিশ্চিত করে বলতে পারছেন না। ময়নাতদন্তের পর নিশ্চিত হওয়া যাবে।

সূত্র: প্রথম আলো