১৮ই এপ্রিল, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ৫ই বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

রাস্তা ছাড়লেন সাত কলেজের শিক্ষার্থীরা, যান চলাচল শুরু

আপডেট : ফেব্রুয়ারি ২৪, ২০২১ ৫:৫৭ অপরাহ্ণ

17

ভয়েস বাংলা ডেস্ক

চলমান পরীক্ষা স্থগিতের প্রতিবাদে রাজধানীর বিভিন্ন সড়কে অবস্থান নেওয়া ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় অধিভুক্ত রাজধানীর সাত সরকারি কলেজের শিক্ষার্থীরা রাস্তা ছেড়ে দিয়েছেন। সাত কলেজের চলমান এবং ঘোষিত পরীক্ষাগুলো চলবে, আজ বুধবার সাত কলেজের অধ্যক্ষ ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য মো. আখতারুজ্জামানের সঙ্গে শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনির অনলাইন বৈঠকে এ সিদ্ধান্ত হওয়ার খবর জানার পরই তাঁরা রাস্তা ছেড়ে দেন।

গতকাল মঙ্গলবার ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ সাত কলেজের চলমানসহ সব পরীক্ষা স্থগিত ঘোষণা করে। এ ঘোষণার পর মঙ্গলবার রাত ৮টা থেকে সোয়া ১০টা পর্যন্ত শতাধিক শিক্ষার্থী নীলক্ষেত মোড়ে অবস্থান করেন। পরে রাত সোয়া ১০টার দিকে তাঁরা চলে যান। আজ বুধবার সকাল থেকে তাঁরা আবার অবস্থান নেন। শিক্ষার্থীদের অবরোধ নীলক্ষেত মোড় থেকে সায়েন্স ল্যাব পর্যন্ত ছড়িয়ে পড়েছিল।

পুলিশ শিক্ষার্থীদের দাবি পূরণ হওয়ার খবর জানালে আজ বিকেল ৪টা ১০ মিনিটে তাঁরা রাস্তা ছেড়ে দেন। পরে যান চলাচল স্বাভাবিক হয়।

এর আগে বুধবার সাত কলেজের অধ্যক্ষ ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য মো. আখতারুজ্জামানে সঙ্গে শিক্ষা মন্ত্রী দীপু মনি অনলাইন বৈঠক করেন। বৈঠকে সিদ্ধান্ত হয়েছে সাত কলেজের চলমান এবং ঘোষিত পরীক্ষাগুলো চলবে। সাত কলেজের শিক্ষা কার্যক্রম তদারকির দায়িত্বপ্রাপ্ত (ফোকাল পয়েন্ট) ঢাকা কলেজের অধ্যক্ষ আই কে সেলিম উল্লাহ খোন্দকার এ তথ্য জানান। তবে তিনি বলেন, এ সময় আবাসিক ছাত্রাবাস খোলা হবে না।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিভুক্ত সাতটি বড় সরকারি কলেজের পরীক্ষা স্থগিত করার প্রতিবাদে রাজধানীর নীলক্ষেত মোড় দ্বিতীয় দিনের মতো অবরোধ শুরু করে বিক্ষোভ করেন শিক্ষার্থীরা। বুধবার সকাল নয়টা থেকে নীলক্ষেত মোড়ে কয়েক শ শিক্ষার্থী অবস্থান নেন। এ কারণে নিউমার্কেট-আজিমপুর সড়কের উভয় পাশে যানবাহন চলাচল বন্ধ হয়ে যায়।

দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে সাত কলেজের শিক্ষা কার্যক্রম তদারকির দায়িত্বপ্রাপ্ত (ফোকাল পয়েন্ট) আই কে সেলিম উল্লাহ ঢাকা কলেজ ও ইডেন মহিলা কলেজের বেশ কয়েকজন শিক্ষক নিয়ে ওই এলাকায় যান। তিনি জানান, শিক্ষা মন্ত্রণালয়ে সাত কলেজের অধ্যক্ষদের ডাকা হয়েছে। সেখানে ইতিবাচক সিদ্ধান্ত আসবে বলে তিনি আশা করেন।

তবে আই কে সেলিম উল্লাহর আশ্বাসের পরও সড়ক ছাড়েনি শিক্ষার্থীরা। তাঁরা শিক্ষা মন্ত্রণালয় থেকে লিখিত আকারে বিজ্ঞপ্তি ও এর সুষ্ঠু সমাধান চান। এরপরই সাত কলেজের চলমান এবং ঘোষিত পরীক্ষাগুলো চলবে—এ ঘোষণার পর শিক্ষার্থীরা সড়ক থেকে সরে যান।

সড়ক অবরোধ করে সাত কলেজের শিক্ষার্থীরা আন্দোলন করেন। ছবিটি সকালের দিকে তোলা

গতকাল মঙ্গলবার ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ সাত কলেজের চলমানসহ সব পরীক্ষা স্থগিত ঘোষণা করে। গতকাল রাত আটটা থেকে শতাধিক শিক্ষার্থী নীলক্ষেত মোড়ে অবস্থান নেন। পরে রাত সোয়া ১০টার দিকে তাঁরা চলে যান। আজ সকাল থেকে তাঁরা আবার অবস্থান নেন।

২০১৭ সালের ফেব্রুয়ারিতে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিভুক্ত হয় ঢাকা কলেজ, ইডেন মহিলা কলেজ, সরকারি শহীদ সোহরাওয়ার্দী কলেজ, কবি নজরুল সরকারি কলেজ, বেগম বদরুন্নেসা সরকারি মহিলা কলেজ, মিরপুর সরকারি বাঙলা কলেজ ও সরকারি তিতুমীর কলেজ। এই কলেজগুলোয় মোট শিক্ষার্থী প্রায় দুই লাখ।

সূত্র – প্রথম আলো