১৯শে জানুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ৫ই মাঘ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

মায়ের রক্তাক্ত লাশ, বাবাকে পুলিশে দিল ছেলে

আপডেট : জানুয়ারি ১১, ২০২১ ১০:৪৪ অপরাহ্ণ

7

ভয়েস বাংলা ডেস্ক

মিরপুরের পল্লবীতে স্ত্রীকে গলা কেটে হত্যার অভিযোগে এক ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। হত্যার ঘটনার পর পালিয়ে যাওয়ার সময় ছেলে তাঁকে আটক করেছে বলে পুলিশ জানিয়েছে। আজ সোমবার দুপুরের দিকে এই ঘটনা ঘটে।

গ্রেপ্তার ব্যক্তির নাম রবিউল ইসলাম (৫০)। পল্লবী থানার উপপরিদর্শক (এসআই) নাঈমা খাতুন প্রথম আলোকে বলেন, ঘটনাটি ঘটে বেলা সাড়ে ১১টার দিকে। রবিউল ইসলামের সঙ্গে স্ত্রী সেলিনা ওরফে বুলিনার (৪০) প্রায়ই ঝগড়াঝাঁটি হতো বলে জানিয়েছেন পরিবারের সদস্যরা।

পরিবারের বরাত দিয়ে পল্লবী থানা–পুলিশ জানিয়েছে, সোমবার সকালেও দরজা বন্ধ করে ঝগড়া করছিলেন রবিউল দম্পতি। একপর্যায়ে রবিউল বাসা থেকে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করেন। তাঁকে দেখে সন্দেহ হয় দম্পতির বড় ছেলে মো. রেজার (২০)। রেজা তখনই ঘরের ভেতর যান এবং মাকে কম্বল প্যাঁচানো অবস্থায় পান। পরে দেখতে পান, তাঁর মা মৃত, গলায় ছুরির পোঁচ। পরে রেজাই বাবাকে আটকে রেখে পুলিশে খবর দেন।

পুলিশ জানিয়েছে, ঘটনাটি ছড়িয়ে পড়ার পরপরই স্থানীয় ব্যক্তিরা রবিউলকে মারধর করেন। পরে ঘটনাস্থল থেকে রবিউলকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। রবিউল নিজেই রক্তমাখা ছুরি পুলিশের হাতে তুলে দেন। রবিউলকে আগামীকাল মঙ্গলবার আদালতে হাজির করার কথা রয়েছে। পুলিশ বলেছে, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে স্ত্রীকে খুনের কথা স্বীকার করেছেন রবিউল।

সেলিনা ওরফে বুলিনা একসময় পোশাক কারখানায় কাজ করতেন। স্বামী রবিউল সব সময় কাজ করেন না। এই দম্পতির ছেলেদের আয়েই মূলত সংসার চলে।

সূত্র: প্রথম আলো




Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *