২২শে জুন, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ৮ই আষাঢ়, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

বেড়েছে শনাক্ত-মৃত্যু

আপডেট : জুন ১০, ২০২১ ৪:৫৫ অপরাহ্ণ

12

ভয়েস বাংলা ডেস্ক

গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় নতুন করে শনাক্ত হয়েছেন দুই হাজার ৫৭৬ জন, যা আগের দিনের চেয়েও বেশি। এর আগের ২৪ ঘণ্টায় শনাক্ত হয়েছিলো দুই হাজার ৫৩৭ জন। একইসঙ্গে বেড়েছে মৃত্যুর সংখ্যা। গত ২৪ ঘণ্টায় এই মহামারিতে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন ৪০ জন; যেখানে এর আগের দিন মারা গিয়েছিলো ৩৬ জন।

বৃহস্পতিবার (১০ জুন) স্বাস্থ্য অধিদফতর করোনা বিষয়ক নিয়মিত সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানিয়েছে।

বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় শনাক্ত হওয়া দুই হাজার ৫৭৬ জনকে নিয়ে দেশে এখন পর্যন্ত করোনাতে মোট শনাক্ত হলেন আট লাখ ২০ হাজার ৩৯৫ জন। আর মারা যাওয়া ৪০ জনকে নিয়ে দেশে এখন পর্যন্ত সরকারি হিসেবে মারা গেলেন ১২ হাজার ৯৮৯ জন।

গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা থেকে সুস্থ হয়েছেন দুই হাজার ৬১ জন। তাদের নিয়ে দেশে করোনা থেকে সুস্থ হলেন সাত লাখ ৫৯ হাজার ৬৩০ জন।

শনাক্ত এবং মৃত্যুর সঙ্গে সঙ্গে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনাতে রোগী শনাক্তের হারও বেড়েছে। গত ২৪ ঘণ্টায় করোনাতে রোগী শনাক্তের হার ১৩ দশমিক ২৫ শতাংশ, তার আগের ২৪ ঘণ্টায় শনাক্তের হার ছিল ১২ দশমিক ৩৩ শতাংশ।

দেশে এখন পর্যন্ত করোনাতে রোগী শনাক্তের হার ১৩ দশমিক ৩৯ শতাংশ। শনাক্ত বিবেচনায় সুস্থতার হার ৯২ দশমিক ৫৯ শতাংশ আর শনাক্ত বিবেচনায় মৃত্যুহার এক দশমিক ৫৮ শতাংশ।

গত ২৪ ঘণ্টায় করোনার নমুনা সংগৃহীত হয়েছে ১৯ হাজার ৮৬৯টি আর নমুনা পরীক্ষা হয়েছে ১৯ হাজার ৪৪৭টি। দেশে এখন পর্যন্ত করোনার মোট নমুনা পরীক্ষা হয়েছে ৬১ লাখ ২৬ হাজার ২৩৮টি। এর মধ্যে সরকারি ব্যবস্থাপনায় পরীক্ষা হয়েছে ৪৪ লাখ ৬৭ হাজার ৬৫৪টি আর বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় পরীক্ষা হয়েছে ১৬ লাখ ৫৮ হাজার ৫৮৪টি।

দেশে বর্তমানে ৫১০টি পরীক্ষাগারে করোনার নমুনা পরীক্ষা করা হচ্ছে। এরমধ্যে আরটি-পিসিআরের মাধ্যমে হচ্ছে ১৩২টি পরীক্ষাগারে, জিন এক্সপার্ট মেশিনের মাধ্যমে ৪৪টি পরীক্ষাগারে এবং র‌্যাপিড অ্যান্টিজেনের মাধ্যমে ৩৩৪টি পরীক্ষাগারে।

গত ২৪ ঘণ্টায় মারা যাওয়া ৪০ জনের মধ্যে পুরুষ ৩১ জন আর নারী নয়জন। দেশে এখন পর্যন্ত করোনাতে আক্রান্ত হয়ে পুরুষ মারা গেলেন নয় হাজার ৩৫০ জন আর নারী মারা গেলেন তিন হাজার ৬৩৯ জন।

তাদের মধ্যে ষাটোর্ধ্ব রয়েছেন ২২ জন, ৫১ থেকে ৬০ বছরের মধ্যে আটজন, ৪১ থেকে ৫০ বছরের মধ্যে সাতজন, ৩১ থেকে ৪০ বছরের মধ্যে একজন, ২১ থেকে ৩০ বছরের মধ্যে একজন আর শূন্য থেকে ১০ বছরের মধ্যে রয়েছে একজন।

মারা যাওয়া ৪০ জনের মধ্যে ঢাকা ও রাজশাহী বিভাগের আছেন আটজন করে, চট্টগ্রাম বিভাগের ১২ জন, খুলনা বিভাগের ছয়জন, সিলেট বিভাগের দুইজন আর রংপুর বিভাগের রয়েছেন চারজন।

তাদের মধ্যে সরকারি হাসপাতালে মারা গেছেন ৩১ জন, বেসরকারি হাসপাতালে মারা গেছেন ছয় জন আর বাড়িতে মারা গেছেন তিনজন।

গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হওয়া দুই হাজার ৬১ জনের মধ্যে ঢাকা বিভাগের ৫২৪ জন, চট্টগ্রাম বিভাগের ৭১৯ জন, রংপুর বিভাগের ১০৬ জন, খুলনা বিভাগের ২৩০ জন, বরিশাল বিভাগের ৫১ জন, রাজশাহী বিভাগের ১৮২ জন, সিলেট বিভাগের ১২১ জন আর ময়মনসিংহ বিভাগের আছেন ১২৮ জন।

সূত্র: বাংলা ট্রিবিউন




Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *