২৯শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ | ১৪ই আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

ফাদার টিমকে নিয়ে নোবেল জয়ী ড. ইউনূসের স্মৃতিচারণ

আপডেট : সেপ্টেম্বর ১৫, ২০২০ ১২:০৫ পূর্বাহ্ণ

25

ভয়েস বাংলা ডেস্ক

বাংলাদেশের জন্য ফাদার রিচার্ড টিম ছিলেন এক স্মরণীয় অধ্যায়। এবং এই দেশের জন্য তাঁর অবদান ছিল খুবই দৃশ্যমান। এমন মন্তব্য করেছেন নোবেল বিজয়ী অধ্যাপক ড. মুহাম্মদ ইউনূস। অধ্যাপক ইউনূস বলেন, ঢাকার হলিক্রস ও নটরডেম কলেজের অন্যতম প্রতিষ্ঠাতা ফাদার টিমের মৃত্যুতে আমি অত্যন্ত ব্যথিত হয়েছি।
দেশের যেকোনো দুর্যোগে তিনি তাৎক্ষণিকভাবে সাহসের সঙ্গে এগিয়ে এসেছেন। মানবিক সহায়তার ক্ষেত্রে তিনি ছিলেন সুউচ্চ স্তম্ভের মতো। তিনি তাঁর সমগ্র জীবন এদেশে কাটিয়েছেন এবং দরিদ্র, অসহায় মানুষদের সেবায় নিজেকে নিয়োজিত করেছিলেন।
ইন্ডিয়ানার নটরডেম বিশ্ববিদ্যালয়ে ২০১৮ সালের এপ্রিল মাসে তাঁর সঙ্গে আমার সাক্ষাৎ হয়। আমি বিশ্ববিদ্যালয়টির বার্ষিক অনুষ্ঠানে বক্তৃতা দিতে গিয়েছিলাম। সেখানকার অধ্যাপকদের একজন আমাকে বলছিলেন যে, ফাদার টিম বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাম্পাসেই আছেন।
ওই অধ্যাপক বলছিলেন যে, তিনি (ফাদার টিম) দুঃখ প্রকাশ করেছেন যে, তিনি বক্তৃতা অনুষ্ঠানে আসতে পারছেন না। আমি তখনই তাঁর সঙ্গে দেখা করার সিদ্ধান্ত নিই এবং অনুষ্ঠানের কাজ শেষ হবার সঙ্গে সঙ্গে তাঁর সঙ্গে সাক্ষাৎ করি।
আমি হতাশ হই যখন আমি তাঁকে একটি ছোট্ট বৃদ্ধনিবাসে আরো পাঁচজন বৃদ্ধ মানুষের সঙ্গে দেখতে পাই। জনগণের সবচেয়ে কাছের মানুষটি এখন তাঁর ভালোবাসার মানুষদের কাছ থেকে কত দূরে। তাঁকে হুইল চেয়ারে নিয়ে আসলেন নার্স।
আমার নিকট থেকে তিনি বাংলাদেশের সব খবর জানতে চাইছিলেন, জানতে চাইছিলেন তাঁর পরিচিতজনদের সম্পর্কে। নার্স আমাকে বার বার মনে করিয়ে দিচ্ছিলেন যে, কথা বলা তাঁর স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকর। কিন্তু ফাদারের কথা কিছুতেই থামানো যাচ্ছিল না।
তিনি বারবারই বাংলাদেশের কথা, এখানকার মানুষের কথা বলে যাচ্ছিলেন, তাদের সম্পর্কে জানতে চাইছিলেন। শেষে নার্স অনেকটা জোর করেই তাঁকে তাঁর কক্ষে নিয়ে যান।
বাংলাদেশের জন্য তাঁর হৃদয়ের টান আমি প্রতি মুহূর্তে অনুভব করছিলাম। তিনি বার বার বলছিলেন, ‘আমি বাংলাদেশে মরতে এবং সেখানেই সমাহিত হতে চেয়েছিলাম। কিন্তু কেউ আমার কথা শুনছে না। আমি খুব অসহায়।
অধ্যাপক ইউনূস বলেন, ফাদার টিম, বাংলাদেশের মানুষের হৃদয়ে আপনি চিরকাল বেঁচে থাকবেন। আপনি তাদেরকে ভালোবেসেছেন। তারাও আপনাকে ভালোবেসে যাবে। তারা আপনাকে সবসময় স্মরণ করবে। বিদায় ফাদার টিম! আপনার মৃত্যুতে বাংলাদেশ একজন অকৃত্রিম বন্ধুকে হারালো। এই দেশ যত দুর্যোগ মোকাবেলা করেছে তার প্রতিটি ক্ষেত্রেই আপনার স্নেহময় হাতের স্পর্শ লেগে আছে।

সূত্র: কালের কন্ঠ