৩০শে জুলাই, ২০২০ ইং | ১৫ই শ্রাবণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

থানায় জিডি করে সাবেক স্ত্রী অদিতির পাশে অপূর্ব

আপডেট : জুলাই ২৫, ২০২০ ৯:১০ অপরাহ্ণ

8

ভয়েস বাংলা ডেস্ক

সাবেক স্ত্রী অদিতিকে হেনস্তা করার অভিযোগে থানায় সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেছেন জনপ্রিয় অভিনেতা জিয়াউল ফারুক অপূর্ব। আজ (২৫ জুলাই) দুপুরে উত্তরা পশ্চিম থানায় একটি সাধারণ ডায়রি বা অভিযোগ দায়ের করেন তিনি। যেখানে উল্লেখ করেছেন বেশ কটি অনলাইন পত্রিকা ও ইউটিউব চ্যানেলের নাম। যেগুলোর মাধ্যমে গত ২২ জুলাই থেকে অদিতিকে উদ্দেশ্যমূলকভাবে কুরুচিপূর্ণ সংবাদের মাধ্যমে হেনস্তা করা হয়েছে বলে দাবি করলেন অপূর্ব।

বাংলা ট্রিবিউন জানায়, অপূর্ব শনিবার (২৫ জুলাই) সন্ধ্যায় বলেন, ‘গত ২২/৭/২০২০ তারিখ হতে কিছু ভুয়া অনলাইন পত্রিকা অত্যন্ত জঘন্য একটি মিথ্যা প্রোপাগান্ডা ছড়ায় আয়াশের মা অদিতির বিরুদ্ধে। আগেই বলেছি, ঐ সকল অনলাইন পত্রিকা এবং ইউটিউব চ্যানেলের বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা করবো। সেই প্রেক্ষিতে আজ দুপুরে আমি পুলিশের সাইবার ক্রাইম শাখায় উপস্থিত হয়ে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করি।’

তিনি আরও জানান, সিটিটিসি-সাইবার অপরাধ তদন্ত বিভাগের পরামর্শক্রমে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের আওতায় উত্তরা পূর্ব থানায় তিনি এই অভিযোগ দায়ের করেন।

এদিকে সিটিটিসি-সাইবার অপরাধ তদন্ত বিভাগের এডিসি নাজমুল সুমন জানিয়েছেন, অপূর্ব আজ দুপুরে সুনির্দিষ্ট কিছু অভিযোগ নিয়ে তাদের কাছে গিয়েছিলেন। তারা তাকে অপূর্বর বাসার এলাকার থানা উত্তরা পূর্ব থানায় এই অভিযোগটি জমা দিতে বলেছেন, তিনি জানিয়েছেন এটাই মামলা দায়েরের স্বাভাবিক প্রক্রিয়া।

সম্প্রতি বেশ কিছু অনলাইনে অপূর্বর সাবেক স্ত্রী অদিতি ও রিজেন্ট সাহেদকে ঘিরে বেশ কিছু সংবাদ প্রকাশ হয়। বলা হয়, অপূর্বর সঙ্গে অদিতির ৯ বছরের সংসার বিচ্ছেদ হওয়ার অন্যতম কারণ এটি।
আর এমন খবরের বিরুদ্ধে শুরু থেকেই বেশ সোচ্চার অপূর্ব। ২২ জুলাই এমন খবরের প্রতিবাদে এই অভিনেতা বলেন, ‘কোনও ধরনের ভনিতা না রেখেই বলছি গত দুইদিন থেকে দেখা যাচ্ছে কিছু কিছু ভুঁইফোঁড় অনলাইন পত্রিকা কোনও ধরনের তথ্য প্রমাণ ছাড়াই আমার সাবেক স্ত্রী নাজিয়া হাসান অদিতি এবং আমার বিচ্ছেদের ব্যাপারে অত্যন্ত কুরুচিপূর্ণ মিথ্যা প্রোপাগান্ডা ছড়াচ্ছেন। যা আমার ও অদিতির জন্য অত্যন্ত বিব্রতকর। আমি আগেও বলেছিলাম অদিতির সাথে আমি এখন সাংসারিক জীবনে না থাকলেও সে আমার সন্তানের মা। সুতরাং অদিতির সম্মান নিয়ে বা অদিতির নামের সাথে জড়িয়ে তৃতীয় কারও নাম নিয়ে যে বা যারা নোংরা খেলায় মাতবে এদের কাউকেই আমি ছেড়ে কথা বলবো না।’ অবশেষে তিনি জিডি করার মাধ্যমে সাবেক স্ত্রীর পাশে দাঁড়ানোর যে কথা দিয়েছিলেন তা রাখলেন বলে মনে করা হচ্ছে।

প্রসঙ্গত, ২০১১ সালের ১৪ জুলাই নাজিয়া হাসান অদিতিকে বিয়ে করেন অপূর্ব। চলতি বছরের ১৭ মে তারা বিবাহ বিচ্ছেদের কথা জানান।




Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *