১লা অক্টোবর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ | ১৬ই আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

চলচ্চিত্র ছেড়ে দেয়ার ঘোষণা দিলেন চিত্রনায়িকা মুনমুন

আপডেট : সেপ্টেম্বর ১১, ২০২০ ৬:২৭ অপরাহ্ণ

28

ভয়েস বাংলা ডেস্ক

টাঙ্গাইলের সখীপুরে বাজার মসজিদের পাশে চিত্রনায়িকা মুনমুনের নাচের ভিডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ার পর সমালোচনায় আসেন চিত্রনায়িকা মুনমুন। এরপর থেকে তিনি বিভিন্ন গণমাধ্যমে সাক্ষাৎকার দেন। সেখানে তিনি নিজেই বলেছেন মিডিয়া ছেড়ে যাবার কথা।

এ বিষয়ে মুনমুন বলেন, আমার নাচের ভিডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ার পর থেকে পারিবারিক ও সামাজিক ভাবে লজ্জিত হয়েছি। যদিও সেই ভিডিওটি আমি ইচ্ছা করে করিনি। আমি নৌকা ভ্রমণে গিয়েছিলাম টাঙ্গাইলের সখীপুরে। এলাকার গণমান্য ব্যক্তিবর্গদের দাওয়াতে। এরপর মসজিদের সাইনবোর্ড দেয়া স্থানে সকলে মিলিত হয়। আমি না বুঝে মসজিদের ওই স্থানে নিত্য করি। ঘটনার পর আমি বিষয়টি বুঝতে পারি।

মুনমুন বলেন, চলচ্চিত্রে আসার পর থেকে আমার উপরে মিথ্যা কলঙ্ক এসেছে। এবারও ঠিক মিথ্যা ঘটনার জন্য আমি দোষী হলাম। চলচ্চিত্রে আমি অনেক হিট ছবি উপহার দিয়েছি আমার দর্শকদের। আমার শক্তি ছিল দর্শক। আজ সেই দর্শকের কাছে আমি লজ্জিত এমন একটা ঘটনার পর। আমাকে সবাই ক্ষমাদৃষ্টিতে দেখবেন।

মুনমুন বলেন, আমি যদি কোন ভুল করে থাকি আপনারা আমাকে ক্ষমা করে দিবেন। চলচ্চিত্রে এসেছিলাম চলচ্চিত্রকে ভালোবেসে। চলচ্চিত্র অঙ্গনের সবার প্রতি আমার ভালোবাসা থাকবে সব সময়।

তিনি আরও বলেন, মিডিয়া ছেড়ে আমি কোন এক ব্যবসায় জড়িত হবো। আমার পরিবারের কাছে আমি কথা দিয়েছি মিডিয়া ছেড়ে দেয়ার। আমার জন্য সবাই দোয়া করবেন।

উল্লেখ্য, মুনমুন ১৯৯৭ সালে বিখ্যাত পরিচালক এহতেশামের মাধ্যমে বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পে প্রবেশ করেন। তিনি এহতেসামের সহকারী হিসেবে কাজ করতে এসেছিলেন, কিন্তু তিনি তার অভিনয়ের দক্ষতা দেখে নায়িকা হওয়ার প্রস্তাব দেন। এহতেসাম পরিচালিত মৌমাছি চলচ্চিত্রে অভিনয়ের মাধ্যমে অভিষেক হয় তার।

কিন্তু চলচ্চিত্রটি ব্যবসায়িকভাবে ব্যর্থ হওয়ায়, কর্মজীবনের শুরুতেই থেমে যেতে হয় তাকে। এরপর মুনমুনের নৃত্যপরিচালক মাসুম বাবুলের সাথে সখ্যতা গড়ে উঠলে, তিনি তাকে চলচ্চিত্রে অভিনয়ের সুযোগ করে দেন। দেলোয়ার জাহান ঝন্টু পরিচালিত শক্তির লড়াই চলচ্চিত্রে অনবদ্য অভিনয় করে দর্শকের মন জয় করেন মুনমুন।

তার অভিনীত মালেক আফসারী পরিচালিত মৃত্যুর মুখে চলচ্চিত্রটি দারুন ব্যাবসা সফল হয়। এছাড়াও তিনি রানী কেন ডাকাত, লঙ্কাকাণ্ড, জানের জান, শত্রু সাবধান, জল্লাদ, রক্তের অধিকার প্রমুখ চলচ্চিত্রে অভিনয় করেছিলেন। তিনি শাকিব খানের বিপরীতে ১৪টি চলচ্চিত্রে অভিনয় করেন।

চলচ্চিত্র থেকে অবসরের পর তিনি বিভিন্ন জেলা শহরে আয়োজিত মেলাতে আসা সার্কাস অনুষ্ঠানে দ্বৈত নৃত্য পরিবেশনা শুরু করেন।

তথ্য সূত্র – এজেড নিউজবিডি ডটকম