৩০শে জুলাই, ২০২০ ইং | ১৫ই শ্রাবণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

একজন সত্যিকারের সুহৃদকে হারালাম

আপডেট : জুলাই ২, ২০২০ ৯:৩৯ অপরাহ্ণ

286

তানবীর সিদ্দিকী কাজল

চলে গেলেন Rapid PR এর ম্যানেজিং ডিরেক্টর শহীদুল ইসলাম শেখর। RIP Shahidul Islam Shakhor Bhai! শুনলাম করোনা হয়েছিল। সেরেও উঠেছিলেন।শেষ পর্যন্ত হার্ট অ্যাটাক উনাকে নিয়ে গেল।
কারো কারো সাথে আমার সম্পর্কের শুরু তর্ক বা ঝগড়া দিয়ে। সেটা পেশাগত কাজের বিষয়ে কিন্তু পরে সেটা গভীর বন্ধুত্বে রূপ নেয়। প্রায় ১২ বছর আগে উনার প্রতিষ্ঠানের ছোট একটা কাজের এডিটিং নিয়ে আলাপ, মন খারাপ হওয়া, কাজটা নতুন করে এডিট করে দেয়া এবং সম্পর্ক গভীর বন্ধুত্বে গড়ায়। সেটা ছিল আমার ছোট ভাইয়ের মেয়ে, আমাদের মা ঢেউ এর প্রথম জন্মদিনের অনুষ্ঠানের ভিডিও এডিটিং নিয়ে। উনার বাগেরহাট বাড়ী। অনেকেই দুজনের কমন বন্ধু। মাসখানেক আগে শেষ কথা। একটা দুই মিনিটের ভিডিও ক্লিপিংস দরকার ছিল। আমাকে লাইনে রেখে উনার সহকর্মীকে নির্দশনা দিয়ে বললেন; আমার বড়ভাই, বিখ্যাত লোক, খবরদার বিল করিসনে। শেখর ভাই আমাকে সন্মান করতেন, বিখ্যাত ভাবতে পছন্দ করতেন অথচ উনার নিজের উঠাবসা ছিল সব বিখ্যাত লোকদের সাথে। দেশের সব গোয়েন্দা সংস্থা, কর্পোরেট হাউস তার ক্লায়েন্ট। দেশের ইলেকট্রনিক মিডিয়ার প্রায় সবাই তাকে চিনতেন। প্রায়ই ফোন করতেন। আমি ফোন করলে প্রথমেই অনুযোগ করতেন উনার অফিসে কেন যাই না। আমার অফিসে উনার প্রতিষ্ঠানের ডিভিডি’র প্যাকেটে ভরা। ইস্কাটনের উনার অফিসে হয়তো আবার যাবো কিন্তু আর হৈ চৈ হবে না। আর বলবেন না, ওই আমার ভাইকে চা দে। মাসুম, সাইফুল এরা হয়তো ডিভিডি করে দেবে কিন্তু শেখর ভাই জানবেন না আর! উনার অফিসের নীচের পিঠা উৎসবে যাওয়ার জন্য আর ফোন করবেন না। আমার নাম প্রিন্ট করা Rapid PR এর ডায়েরী আর ক্যালেন্ডার আর পাব না! সমাজের অনিয়ম আর অসংগতি উনাকে পীড়া দিত। মনের কষ্ট লিখতেন ফেসবুকে। ইনবক্সে আমাকে শেয়ার করতেন। বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর একটা Capstone প্রোগাম আছে সিভিলিয়ানদের জন্য। পরিচিত অনেকেই করেছেন। ফেসবুকে দেখলাম উনিও করেছেন। একদিন আড্ডার সময় বললাম কতদিনের কোর্স? আমি করতে চাই। আমাকে হতাশ করে দিয়ে বললেন, আপনি কোর্স করবেন কেন! আপনি তো ওখানে যাবেন ট্রেইনার হিসেবে! হায়রে শেখর ভাই! আমাকে আপনি এমন ভাবতেন! ভালো থাকবেন শেখর ভাই। আমি একজন সত্যিকারের সুহৃদকে হারালাম।

লেখকঃ গণমাধ্যম কর্মী ও আইনজীবী