২১শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ৬ই আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

আমির খানের ছবিতে অডিশন দিয়েছিলেন ‘জেমস বন্ড’

আপডেট : জুলাই ২৯, ২০২১ ১:৩৯ পূর্বাহ্ণ

33

ভয়েস বাংলা ডেস্ক

আমির খান অভিনীত রং দে বাসন্তি ছবির জন্য অডিশন দিয়েছিলেন ‘জেমস বন্ড’খ্যাত ড্যানিয়েল ক্রেগ। ছবির জেমস ম্যাকিনলি চরিত্রের জন্য অডিশন দিয়েছিলেন তিনি। কিন্তু অডিশন দিলেও এই চরিত্রে অভিনয় করার সুযোগ হয়নি।

তখন বিজ্ঞাপন বানিয়ে হাত পাকিয়েছেন রাকেশ ওমপ্রকাশ মেহরা। বানিয়েছেন আকস নামে একটি ছবি। এরপর দীর্ঘ বিরতি। এরপরই এমন একটি ছবি বানানোর পরিকল্পনা করলেন, যা হবে আন্তর্জাতিক মানের, নিখুঁত। ছবিতে দেশি শিল্পীদের পাশাপাশি থাকবে বিদেশি শিল্পীও।

তাই ডেভিড রেইড ও অ্যাডাম বোলিংয়ের মতো প্রযোজকের সঙ্গে যোগাযোগ করলেন নির্মাতা। লন্ডনভিত্তিক এই দুই প্রযোজকের পাণ্ডুলিপি বেশ ভালো লাগে। তাঁরাই জেমস ম্যাকিনলি ও সু ম্যাকিনলি চরিত্রে অভিনয়শিল্পী বাছাইয়ের কাজটি করেন। এই দুজনের মাধ্যমেই অডিশনে অংশ নেন ড্যানিয়েল ক্রেগ।

ছবি তৈরির এত দিন পরে এই কথা! সম্প্রতি দ্য স্ট্রেঞ্জার ইন দ্য মিরর নামে নির্মাতা রাকেশ ওমপ্রকাশ মেহরার আত্মজীবনী বের হয়েছে। সেখানেই এ তথ্য ফাঁস করলেন মেহরা।

মেহরা তাঁর আত্মজীবনীতে লিখেছেন, ‘স্পষ্ট মনে আছে, জেমস ম্যাকিনলির জন্য যাঁরা অডিশন দিয়েছিলেন, তাঁদের মধ্যে ছিলেন একজন, তিনি আর কেউ নন, বর্তমান জেমস বন্ড ড্যানিয়েল ক্রেগ।’

কিন্তু শেষ পর্যন্ত সেই চরিত্র করলেন স্টিভেন ম্যাকিনটশ। ইচ্ছা থাকলেও সময় দিতে পারেননি ড্যানিয়েল। তখন তাঁকে হাতছানি দিয়ে ডাকছে জেমস বন্ড। আর কে না জানে, রং দে বাসন্তির মুক্তির একই বছরে মুক্তি পেয়েছিল ক্যাসিনো রয়্যাল। আর চলচ্চিত্র পেল নতুন জেমস বন্ড।

মেহরা আত্মজীবনীতে আরও লেখেন, ‘ড্যানিয়েল ক্রেগই আমার প্রথম পছন্দ ছিল। কিন্তু সে আমাদের কাছে সময় চেয়েছিল। আর তারপর তো ইতিহাস।’

শুধু তা–ই নয়, আত্মজীবনীতে মেহরা জানিয়েছেন, ছবিটির সংগীতের জন্য কীভাবে পিটার গ্যাব্রিয়েলকে প্রায় নিয়েই ফেলেছিলেন। ব্রিটিশ রকব্যান্ড জেনেসিসের প্রতিষ্ঠাতা সদস্য পিটার। কিন্তু মেহরাকে একজন পরামর্শ দিয়েছিল এ আর রহমানকে দিয়ে সংগীত করানোর। তারপরের ইতিহাস তো সবারই জানা। ছবির গানগুলো জনপ্রিয়তার তুঙ্গে ছিল।

২০০৬ সালে মুক্তি পায় রং দে বাসন্তি। আমির খান, সিদ্ধার্থ, অতুল কুলকার্নি, সোহা আলী খান, সারমান যোশী, কুনাল কাপুর, আর মাধবনসহ একঝাঁক তারকা অভিনয় করেন ছবিটিতে। ভারতে আলোড়ন তোলার পাশাপাশি ছবিটি গোল্ডেন গ্লোব ও অস্কারের বিদেশি ভাষা শাখায় ভারতের প্রতিনিধিত্ব করেছিল।

সূত্রঃ প্রথম আলো




ছবি