৪ঠা ডিসেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ | ১৯শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

আকবরকে ধরার কৃতিত্ব কার?

আপডেট : নভেম্বর ১০, ২০২০ ১০:২১ পূর্বাহ্ণ

20

ফজলুল বারী

জনাব রহিম উদ্দিন। তিনি সিলেট-মেঘালয় সীমান্তের একজন বিশিষ্ট গরু চোরাকারবারী। পুলিশের সোর্স হিসাবেও সীমান্তে তার ব্যাপক দাপট!

এই গরু চোরাকারবারী সোর্স রহিম উদ্দিন বিশাল এক কাজ করেছেন। পুলিশের সর্বোচ্চ পুরস্কার পাবার মতো কাজ!

মেঘালয়ের খাসিয়া হেডম্যান আকবরকে ধরার পর রহিম উদ্দিনকে খবর দেয়। কারণ বাংলাদেশের একজন বিশিষ্ট গরু চোরাকারবারী রহিম উদ্দিনকেই তারা শুধু চেনে জানে। রহিম উদ্দিন দলবল নিয়ে বিনা পাসপোর্টে সীমান্ত অতিক্রম করে ভারতে সেই খাসিয়া হেডম্যানের বাড়িতে গিয়ে আকবরকে নিয়ে আসে। অতঃপর পুলিশ সগৌরবে ঘোষনা করে আকবরকে আমরা ধরেছি।

ফেসবুকেও বিশিষ্ট ব্যক্তিরা ঘোষণা করেন সত্যি তো, পুলিশ ছাড়া কাউকে গ্রেফতারের আইনগত কর্তৃত্ব কারো নেই। খাসিয়াদেরও নেই, বিশিষ্ট গরু চোরাকারবারী রহিম উদ্দিনেরও নেই।

বেয়াদব আকবর অবশ্য মেঘালয়ে খাসিয়াদের কাছে থাকতে বলে ফেলেছে উর্ধতন অফিসারদের পরামর্শে সে পালিয়েছিল। এখন পুলিশের আকবর পুলিশের হাতে আছে। পুলিশের জন্য বিব্রতকর কোন গল্প পুলিশ আর প্রকাশ করবে না।

(লেখক- অস্ট্রেলিয়া প্রবাসী সাংবাদিক। লেখকের ফেসবুক স্ট্যাটাস থেকে।)